দিবস

আজ বিশ্ব হাসি দিবস ২০২২- হাসির ছন্দ এবং হাসির কিছু ছবি

হাসলে মানুষের হার্ট সুস্থ থাকে তা সাইন্টিফিক ভাবে প্রমাণিত.  আজ  2মে বিশ্ব হাসি দিবস. বন্ধুবান্ধব আত্মীয়স্বজন এবং ছোট বাচ্চাদের সাথে আনন্দঘন মুহুর্ত কাটানোর সর্বাপেক্ষা উত্তম সময় এটি.  ছোট বাচ্চাদের জন্য হাসির বাকসো উজ্জ্বলিত হয় দিবসকে কেন্দ্র করে. জাতিসংঘ ,যুক্তরাষ্ট্র সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে নানান কর্মপরিকল্পনার মধ্য দিয়ে বিশ্ব হাসি দিবস পালিত হচ্ছে. 

যাই হোক, প্রিয় বন্ধুরা আপনারা কি বিশ্ব হাসি দিবস উদযাপন করতে প্রস্তুত?  তাহলে সর্বপ্রথম একটু হেসে রিহার্সেল করতে পারেন. যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে তাহলে চলুন এখন আমরা বিশ্ব হাসি দিবস কিভাবে উদযাপন করা যায় তার বিভিন্ন সরঞ্জাম সম্পর্কে জানব.

বিশ্ব হাসি দিবস উপলক্ষে আমরা এই ওয়েবসাইটে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ হাসির কৌতুক, হাসির ছন্দ এবং হাসির কিছু ছবি আপলোড করেছি- যে গুলো ব্যবহারের মধ্য দিয়ে বিশ্ব হাসি দিবস স্মৃতির অ্যালবামে স্মৃতিময় হয়ে থাকতে পারে.  এছাড়া ও হাসির মাধ্যমে মানুষের হার্ট কিভাবে সুস্থ এবং সচল থাকে অথবা হাসির উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব.

বিশ্ব হাসি দিবস ২০২২ কবে?

জাতিসংঘ কর্তৃক একটি নির্দিষ্ট  প্রতিপাদ্য বিষয় এর মাধ্যমে বিশ্ব হাসি দিবস প্রতিবছর ২ মে বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্রের পালিত হয়। এই দিবসকে কেন্দ্র করে হাসির উপকারিতা এবং একজন মানুষ দীর্ঘ দিন টিকে থাকার জন্য হাসির প্রয়োজন কতটুকু তা ব্যাখ্যা করতে  মূলত এই দিবস পালন করা হয়। 

 হাসির ছন্দ

ছন্দের মাধ্যমে আপনি যদি কাউকে হাসাতে চান তাহলে আমাদের সরবরাহকৃত হাসির ছন্দ গুলো সংগ্রহে রাখতে পারেন। আমরা গ্যারান্টি দিতে পারি যে আমাদের ছন্দ গুলো যে একটার করবে তাকে একটি মুচকি হাসি হলেও হাসতে হবে। আপনি নিশ্চয়ই চার্লি চ্যাপলিন এবং মিস্টার বিন এর নাম শুনে থাকবেন। মানুষকে হাসানোর জন্য তারা কত ধরনের অভিনয় করে একটু ভেবে দেখুন তো?

আনলিমিটেড হাসির ছন্দ দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আমি মনে করি এটি একটি উত্তম কাজ কারণ যে কাজের মাধ্যমে হাসির উদ্রেক হয় অর্থাৎ অন্তর আনন্দে প্রফুল্ল হয় তা নিশ্চয়ই ভালো কাজ।  নিয়মিত হাসিখুশি থাকা মানুষ একজন দুশ্চিন্তাযুক্ত মানুষের চেয়ে সুখী হয়ে থাকে। 

আপনি যদি আপনার মা-বাবাকে কোন কথার মাধ্যমে হাসাতে পারেন তাহলে নিশ্চয়ই  আপনার জন্য সওয়াব বাজেট করা রয়েছে।  এছাড়া ও আপনি যদি পাশের বৌদি বা ভাবিকে পটাতে চান তা হলে সর্বপ্রথম তার সাথে হাসিমুখে কথা বলা উত্তম। তাই বলা যায় হাসিতে যত মুক্তা ঝরে, দেহখাচা তত মজবুত হয়।

 এই ছবিগুলো দেখলে আপনি হাসি থামাতে পারবেন না গ্যারান্টি!

সর্বশেষ আমরা আশা করছি যে, বছর ঘুরে যখন ২মে  আমাদের দরজায় এসে নক করে তখন আমরা কোন আঙ্গিকে হাসবো অথবা হাসির খোরাক কিভাবে যোগান দেবো তা খোঁজ করতে থাকি। আশাকরি বিশ্ব হাসি দিবস উপলক্ষে আমাদের ওয়েবসাইটের আর্টিকেলগুলো আপনাদের ভাল লেগেছে। মানুষের স্বল্প জীবনে নিয়মিত হাসার অভ্যাস করার জন্য অথবা হাসির উপকারিতা সম্পর্কে অন্যকে জানাতে পোস্টটি শেয়ার করতে ভুলবেন না।

#আমেরিকানরা বিশ্ব হাসি দিবস কিভাবে পালন করে?

Ali Hossain

আমি মোঃ আলী হোসেন । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button
Close