রোমান্টিক কালেকশন

প্রেমিকা বা প্রেমিকের রাগ ভাঙানোর সেরা 10টি কৌশল

কথায় আছে- রেগে গেলেন তো, হেরে গেলেন ।বয়ফ্রেন্ড-গার্লফ্রেন্ডের অথবা গার্লফ্রেন্ড- বয়ফ্রেন্ডের রাগ ভাঙ্গাতে এই পোস্টে কিছু গুরুত্বপূর্ণ উপায় দেওয়া রয়েছে। আপনার যদি কোন কারণে প্রেমিক বা প্রেমিকার সাথে রাগারাগি করে থাকেন, তবে এই পোস্টটি সমস্ত রাগকে পানি বানিয়ে দিতে সক্ষম।

রাগ থাকাটা স্বাভাবিক, তবে প্রেমিক বা প্রেমিকার রাখে একটু ভিন্ন ধরনের তাই একটু ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করে প্রেমিক-প্রেমিকার এবং প্রেমিকা প্রেমিকের রাগ ভাঙাতে পারেন।

ধরুন, আপনার প্রেমিকা কোন কারণে আপনার ওপর রেগে আছে্‌ তখন আপনি কি করবেন? আপনার দোষ না থাকা স্বত্তেও প্রেমিকাকে বলা সরি বলা দরকার, কিন্তু কিভাবে সরি বলে রাগ ভাঙ্গাবেন তা জেনে নেওয়া খুব জরুরী।

সুতরাং প্রেমিক বা প্রেমিকার রাগ করে থাকলে মাথা ঠাণ্ডা করে নিচের উপায়গুলো অবলম্বন করুন এবং প্রেমিক এবং প্রেমিকের সাথে আজীবন সুসম্পর্ক বজায় রাখার পথ তৈরি করুন।

প্রেমিক বা প্রেমিকার রাগ কমানোর 10 টি উপায়

  1. প্রেমিক বা প্রেমিকার রাগ কমানোর জন্য রাগ হওয়া বস্তুটিকে ধূলিসাৎ করতে হবে ।যেমন ধরুন ফোন না ধরা, মেসেজের রিপ্লাই না দেওয়া । ফোন ওয়েটিং এ থাকা, অন্য মেয়ে বা ছেলের মেসেঞ্জারে চ্যাট করা, দেখা করতে দেরি করা, গুরুত্ব কম দেওয়া এবং সর্বোপরি কথামত না না চলা।
  2. আর যদি কোনো কারণবশত জিএফ অথবা বিএফ এর সাথে কথা কাটাকাটি হয়ে যায়, তবে নিশ্চয়ই বিএফ এর উচিত জিএফ কে সরি বলা।  গার্লফ্রেন্ড চায় তার বয়ফ্রেন্ড তাকে সরি বলুক। এরপর তাকে পুরো ঘটনাটা খুলে বলুন ।দেখবেন প্রেমিক হত বাট প্রেমিকা/ প্রেমিকার রাগ ঠান্ডা হয়ে গেছে।
  3. সারাদিন সারারাত প্রেমিক এবং প্রেমিকের সাথে যোগাযোগ না করতে প্রেমিক-প্রেমিকা রাগান্বিত অবস্থায় থাকতে পারে এটাই স্বাভাবিক। ব্যস্ততা পূর্ণ এই জীবনে সবকিছু নিয়ন্ত্রণে রাখতেুরন। তাই আপনার প্রেমিক এবং প্রেমিকা সে বিষয়ে রাগ করে থাকলে তাকে জড়িয়ে ধরে সরি বলুন ।জড়িয়ে ধরলে অধিকাংশ মেয়ের বা  ছেলের রাগ কমে যায়।
  4. দেখা করতে দেরি হয়ে রাগ করাটা স্বাভাবিক ।আপনি যদি এরকম কথা স্বীকার হন তবে প্রেমিক বা প্রেমিকাকে খুলে বলুন ভালোবাসা যেমন জরুরি ।তেমনি সময়কে মূল্য দেওয়া জরুরি ।সময়ের মূল্য দিয়ে আমরা আমাদের ভবিষ্যৎ উন্নতি করব, আর আমি যে সময় ব্যস্ত থাকি তা নিশ্চয়ই আমাদেরকে একটি ভবিষ্যৎ দিতে পারে।
  5. অন্য মেয়ের সাথে কথা বলতে দেখলে গার্লফ্রেন্ড টা একটু বেশি রাগ হয় ।তাই রাগ সম্মেলন জন্য তাকে খুলে বলুন ।মেয়ে অথবা ছেলে যেই হোক না কেন জীবনে চলার পথে প্রত্যেকেরই প্রয়োজন আছে ।তোমার জায়গায় তুমি থাকবে, আর অন্য জায়গায় অন্য থাকবে এটাই স্বাভাবিক।
  6. আপনার অতীত ছিল এই ভেবে গার্লফ্রেন্ড অথবা বয়ফ্রেন্ড আপনার উপরে রাগ করতে পারে ।তাই প্রেমিক বা প্রেমিকাকে অতীতের সব ঘটনা খুলে বলুন এবং সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে দুজনেই সুসম্পর্ক গড়ে আজীবন থাকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ করুন।
  7. চাকরি পেতে দেরি হলে এবং অন্যদিকে প্রেমিকার ধৈর্যের বাধ পেরিয়ে যাওয়ার উপক্রম হলে প্রেমিকা আপনার উপর রাগ করতে পারে এটাই স্বাভাবিক ।মেয়েরা ভবিষ্যৎ জীবন সম্পর্কে একটু বেশি চিন্তা ভাবনা করে ।আপনি যদি এরূপ সমস্যার সম্মুখীন হন, তবে- অলস সময় অতিবাহিত না করে আজ থেকে কাজে মনোযোগ দিন এবং কিছু একটা করে আপনার প্রেমিকের কাছে মহৎ হওয়ার চেষ্টা করুন ।বর্তমানে অনলাইনে অসংখ্য মানুষ ইনকাম করছে ।আপনি চাইলে তার মধ্যে যেকোনো একটা শর্ট কোর্স করে কাজে লেগে যেতে পারেন ।পড়ে দেখবেন প্রেমিকার রাগ তো দূরের কথা, ভালোবাসা দিয়ে ভরপুর হবে আপনার জীবন।
  8. আপনি আপনার কলিগ অথবা প্রয়োজনীয় ছেলে অথবা মেয়ে বন্ধুর সাথে অনলাইনে সেটিং করতে পারেন, সেই সময় যদি আপনার প্রেমিক এবং প্রেমিকা একটু বেশি বুঝে রাগারাগি করে থাকে -তাহলে ঠান্ডা মাথায় আপনার প্রেমিকা কে বুঝিয়ে বলুন স্কুলের সবার ১ হয় না, কিন্তু আমার হৃদয়ের স্কুলে তোমার রোল চিরদিন ১ থাকবে।
  9. গার্লফ্রেন্ডরা হচ্ছে কোমল হৃদয়ের অধিকারী । তাই পৃথিবীর সকল গার্লফ্রেন্ডের রাগ ভাঙ্গানোর সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলো- দোষ-গুণ এর বিচার না করে সরি বলে নিজেকে প্রেজেন্টেশন করা।
  10. ভুল বোঝাবুঝির কারণে গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ডের উপর এবং বয়ফ্রেন্ড আর গার্লফ্রেন্ড এর উপর রাগারাগি করতে পারে ।আপনি যদি এমন অবস্থার সম্মুখীন হয়ে থাকেন ,তবে নিজের মস্তিষ্কে কিছু কৌশল অবলম্বন করে তাৎক্ষণিকভাবে রাগ ভাঙানোর চেষ্টা করুন । যেমন -ধরুন, একটি গোলাপ ফুল কিনে অথবা কিছু শপিং করে তার সামনে নিয়ে গেলেন এবং সরি বলে তাকে  মহৎ করে তুললেন,ক্ষণিক সময়ের জন্য তার কথা মত কাজ করলেন এতে আপনার গার্লফ্রেন্ড অথবা বয়ফ্রেন্ডের দাগ দূর হবে বলে আমরা বিশ্বাস করি

প্রিয় বন্ধুরা প্রেমিক প্রেমিকার রাগ ভাঙ্গানোর উপায় আপনার মধ্যে নিহিত রয়েছে ।আপনি সৃজনশীলতার মাধ্যমে কতভাবে এবং কিভাবে আপনি আপনার প্রেমিক বা প্রেমিকার রাগ ভাঙ্গাবেন সেটা আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে  বিশেষ করে জীবনের স্মার্টনেস এখানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ।ওপরের উপায়গুলো অবলম্বন করেও আপনি যদি আপনার প্রেমিক অথবা প্রেমিকার রাগ ভাঙ্গাতে না পারেন, তবে আমাদেরকে কমেন্টে জানাতে পারেন ।আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার কমেন্ট এর জবাব দিয়ে নবদম্পতির ভালোবাসায় অক্সিজেন যোগাবো।

মোঃ জাহিদুল ইসলাম

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button