সমস্যা এবং সমাধান

পাসপোর্ট এবং ই-পাসপোর্ট আবেদন ও চেক করার নিয়ম ২০২২

পাসর্পট হচ্ছে নিজে দেশে অন্য দেশে গমন বা ভ্রমনের জন্য অনুমতিপত্র।পাসর্পোট ছাড়াও আমরা অন্য দেশে গমন ও ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবো।বর্তমান এই বিশ্বয়নের যুগে আমরা শুধু একটি গন্ডির মধ্যে না বিস্তৃতি ছড়িয়ে দিয়েছি আর্ন্তজাতিক অজ্ঞনে।আমরা অনেকি কাজের জন্য বা ভ্রমনের জন্য বিদেশে গিয়ে থাকি সেজন্য পাসর্পোট অতি দরকারি।আজকে আমি পাসর্পোটের অনলাইন আবেদন ও যাচাই পদ্ধতি শেখাবো।

ই-পাসর্পোটঃ

ই-পাসর্পোট হচ্ছে এমন একটি পাসর্পোট যেখানে ব্যক্তিগত তথ্যগুলো খালি চোখ পড়া যায় এবং এর মধ্যে একটি চিপ লাগানো থাকে যেখানে ব্যক্তিগত সকল তথ্য সেইভ করা থাকে।যা শুধু নির্দিষ্ট কম্পিউটার ও আন্তর্জাতিক সীমানা সমুহে পড়া যায়।চিপসে আঙ্গুলের,আইরিশ,স্বাক্ষর ও ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষিত যা শুধু বিশেষ যন্ত্রেই পড়তে পারে।

ই-পাসর্পোটের সুবিধাঃ

  • এখানে ছবি,আঙ্গুলের ছাপ,আইরিশ,স্বাক্ষর ডিজিটাল ফরমেট ব্যবহার করা হয়।
  • অনুমোদন পদ্ধতি ইলেকট্রনিক্স।
  • কেন্দ্রীয় পারসোনালাইজেশন।
  • তৎক্ষনাত মনিটরিং।
  • আপটুডেট অপারেটিং ব্যবস্থা।
  • অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবস্থা।

অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়াঃ

www.passport.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন।হোম পেইজের উপরের দিকে অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনে ক্লিক করুন।এখানে কিছু নীতিমালা  দেখাবে আপনি কনটিনিউ এনরোলমেন্টে ক্লিক করুন।

১ম ধাপঃ

অ্যাপ্লাইং ইনঃ সেখানে কোন দেশ থেকে আবেদন করতেছেন তা লিখতে হবে।

২য় ধাপঃ

অ্যাপ্লাইং ধরনঃ নতুন হলে নতুন অ্যাপ্লিকেশন লিখতে হবে।রিনিউ করতে হলে অন্য লিংকে যেতে হবে।

৩য় ধাপঃ

পাসর্পোটের ধরনঃআপনি কি ধরনের পাসর্পোট চাচ্ছেন তা লিখতে হবে।সাধারন,ডিপ্লোমেটিক,অফিশিয়াল যে পাসর্পোটের জন্য আবেদন তার সার্পোটিং কাগজপত্র জমা দিতে হবে।

৪র্থ ধাপঃ

ডেলিভারীর ধরনঃ রেগুলার ডেলিভারী নিতে হলে রেগুলার লিখুন।জরুরী হলে এক্সপ্রেস লিখুন।

এরপর আপনার ব্যক্তিগত তথ্যগুলো সঠিকভাবে পুরন করতে হবে।সবগুলো পুরন করা হলে সেইভ অপশন আসবে এবং ক্লিক করলে সেইভ হয়ে যাবে।নিবন্ধন সম্পন্ন হলে সেখানে দেখাবে এবং আপনার ইমেইলে অ্যাপ্লিকেশন নাম্বার ও পাসওয়ার্ড পাঠিয়ে দিবে।এবং

সবশেষে পেমেন্ট অপশন আসবে আপনি চাইলে আপনার ডেবিট কার্ড বা ক্রেডিট কাড অথবা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবেন।অথবা স্কিপ করে পরবর্তী সময়েও পে করতে পারেন।আবেদন করার ১৫দিন পর আপনার ছবি,আঙ্গুলের ছাপ,আইরিশ স্ক্যান,স্বাক্ষর এসববপর জন্য স্বশরীরে পাসর্পোট অফিসে যেতে হবে।

পাসর্পোট যাচাইঃ

www.epassport.gov.bd ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে খুব সহজেই পাসর্পোট যাচাই করতে পারবেন।আপানার অ্যাপ্লিকেশন নাম্বর দিয়ে স্ট্যাটাট যাচাই আপটেড পাবেন।

এসব বিষয় অনুসরন করলে খুব সহজে আপনি পাসর্পোটের আবেদন ও স্ট্যাটাস যাচাই করতে পারবেন।

Ali Hossain

আমি মোঃ আলী হোসেন । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button
Close