সমস্যা এবং সমাধান

অনলাইনে জিডি করার নিয়ম

আমাদের কোন কিছু হারিয়ে গেলে বা জীবন নাশের হুমকির অশঙ্কা থাকলে। আমার আর স্বাভাবিকভাবে চলতে পারি না সেক্ষেত্রে  আমাদের পুলিশের দারগ্রস্ত হতে হয় ও এটার জন্য সাধারন ডায়েরী/জিডি করতে হয়।কিন্তু অনেকেই থানা যেতে পারেনা বা যাদের জীবন নাশের হুমকি থাকে তারা বাইরে বের হতে এবং থানায় যেতে ভয় পায়।

এ সমস্যা দূর করার জন্য বাংলাদেশ সরকার অনলাইনে জিডি করার সুবিধা চালু করেছে।আজকে এই প্রতিবেদনে অনলাইনে জিডি করার নিয়মগুলো দেখাবো।www.gd.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনি খুব সহজে কোন ঝামেলা ছাড়াই জিডি করতে পারবেন।

জিডি আবেদন করতে যা প্রয়োজনঃ

 *আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর

* আপনার সচল মোবাইল নম্বর

* আপনার জন্ম তারিখ

জিডি আবেদনের নিয়মাবলীঃ

প্রথম ধাপ-

  • আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের নম্বর ,মোবাইল নম্বর ও জন্ম তারিখ লিখে সাবমিট করুন
  • আপনার পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য এসএমএস এর মাধ্যমে একটি কোড আপনার দেওয়া মোবাইল নম্বরে পাঠানো হবে ।

দ্বিতীয় ধাপ-

  • নিজের জন্য নাকি অন্যের পক্ষে জিডি করবেন সেটি নির্বাচন করুন ।
  • জিডির ধরন এবং আপনি কি হারিয়েছেন অথবা খুঁজে পেয়েছেন তা নির্বাচন করুন
  • কোন জেলার কোন থানায় জিডি করতে চান তা নির্বাচন করুন,ঘটনার সময় ও স্থান লিখে “পরবর্তী ধাপ” বাটনে ক্লিক করুন

তৃতীয় ধাপ-

  • আপনার বর্তমান ঠিকানা এবং ঘটনা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত বর্ণনা লিখুন
  • জিডি সম্পর্কিত কোন ডকুমেন্ট থাকলে সেগুলো সংযুক্ত করুন।আপনার ইমেইল এড্রেস লিখুন। “সাবমিট ” বাটনে ক্লিক করে জমা দিন
  • আবেদন সম্পন্ন হলে লগইন করে আপনি আপনার জিডির সর্বশেষ অবস্থা জানতে পারবেন।

বর্তমানে অনলাইন জিডি সার্ভিসটি পরীক্ষামূলকভাবে শুধু ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সূত্রাপুর, কলাবাগান ও ক্যান্টনমেন্ট এবং ময়মনসিংহ জেলার সদর ও ভালুকা থানা এলাকায় চালু আছে। এর বাইরে অন্য যেকোন থানায় হারানো অথবা প্রাপ্তি সংক্রান্ত জিডি সশরীরে থানায় গিয়ে করতে হবে। 

Ali Hossain

আমি মোঃ আলী হোসেন । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button
Close