World V. I. P Zoneখেলোয়ার

আফিফ হোসেন বয়স, লাভার, পরিবার, বেতন এবং ক্যারিয়ার

আফিফ হোসেন ধ্রুব ২২সেপ্টেম্বর ১৯৯৯ সালে খুলনায় জন্মগ্রহন করেন।খুব ছোটবেলায় তিনি মাকে হারান এবং পরে ঢাকায় খালার কাছে বেড়ে ওঠেন।তার বাবা কখনো তার ক্রিকেটার হওয়ার জন্য বাধা দেননি।বাংলাদেশ ক্রিকেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)থেকেই তার ক্রিকেটের গোড়া পত্তন হয়।এর মধ্যেই বয়স ভিত্তিক খেলাগুলোতে তিনি তার সাফল্যতার পরিচয় দেন।

অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে ভারতের সিএবি দলের বিপক্ষে চার ম্যাচের সিরিজে চারটি হাফসেঞ্চুরি করে।বিপিএলেও দারুণ পারফরম্যান্স আফিফের। ২০১৬ সালে বিপিএলে অভিষেক ম্যাচেই ৫ উইকেট নিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছিলেন।তিনি রাজশাহী কিংসের হয়েও খেলেছিলেন।

সর্বশেষ খুলনার হয়ে তিনি ৫৪ রান করেন বিপিএলে।২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তাকে শ্রীলঙ্কা দলের বিপক্ষে বাংলাদেশে টি২০ আন্তর্জাতিক দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার টি২০ অভিষেক হয়।

ব্যক্তিগত তথ্যঃ

নাম: আফিফ হোসেন

ডাক নাম: ধ্রুব

বাবা: জাহাঙ্গীর হোসেন

মা: হেলেনা আক্তার

জন্ম: খুলনা

জন্মস্থান: ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৯৯

উচ্চতা: ৫ ফুট ৯ ইঞ্চি

প্রথম ক্লাব: বিকেএসপি

বর্তমান ক্লাব: আবাহনী লিমিটেড

ব্যাটিং স্টাইল: বাঁহাতি

বোলিং স্টাইল: অফস্পিনার

প্রিয় মানুষ: বড় খালামনি

প্রিয় ক্রিকেটার: সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, কুইন্টন ডি কক

অন্য প্রিয় খেলা: ফুটবল

প্রিয় ফুটবলার: লিওনেল মেসি

প্রিয় ফুটবল দল: ব্রাজিল

প্রিয় বন্ধু: আরহাম ও জাকির হাসান

ঘরোয়া কর্মজীবনঃ

১৭ বছর বয়সে ২০১৬ সালের ৩রা ডিসেম্বর, তিনি সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে টি২০ ক্রিকেটের প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-এর ২০১৬-১৭ মৌসুমে তার দল রাজশাহী কিংস-এর হয়ে অভিষেকেই ৫ উইকেট শিকার করেন। তিনি লিগ পর্বের শেষার্ধে দিকে খেলেন, ও অভিষেকেই চিটাগাং ভাইকিংস-এর বিপক্ষে মাত্র ২১ রান দিয়ে ৫ উইকেট শিকার করেন, উল্লেখ্যঃ তার শিকার করা উইকেট সমূহের মধ্যে একটি ছিল ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল-এর উইকেট।

তিনি ২০১৬–১৭ বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ-এ প্রথম-শ্রেনীর ক্রিকেটে অভিষিক্ত হন।প্রথম ইনিংসে ওপেনিং এ তিনি ১০৫ রান করেছিলেন এবং ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছিলেন।

অনূর্ধ্ব-১৯

২০১৬ এশিয়া কাপ টুর্নামেন্টে তিনি বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সহ-অধিনায়ক ছিলেন।২০১৭ সালে ডিসেম্বরে, নিউজিল্যান্ড-এ অনুষ্ঠিত হওয়া ২০১৮ আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ-এর জন্য ঘোষিত বাংলাদেশ দলে তার নামও ষোষণা করা হয়েছিল।এই খেলাতে তিনি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন তার ব্যক্তিগত রান ছিলো ২৭৬।আইসিসি তাকে বাংলাদেশের উদীয়মান তারকা খেলোয়াড় নির্বাচিত করেন।

আর্ন্তজাতিক ক্যারিয়ারঃ

২০২০ সালের ফ্রেবরুয়ারীতে বাংলাদেশ বনাম জিম্বাবুয়ে সিরিজে তাকে একদিনের আর্ন্তজাতিক স্কোয়াডে তাকে অর্ন্তভুক্ত করে।এই সিরিজের ৩য়  ওডিআই ম্যাচে তিনি খেলেন। এটাই ছিলো তার আর্ন্তজাতিক ওডিআই অভিষেক ম্যাচ।

আফিফের দুর্দান্ত বোলিং ও ব্যাটিং পারর্ফরমেন্সের মাধ্যমে দর্শকের মন জয় করেছে।আফিফ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের এক শক্তিশালী মিসাইল। তিনি ভবিষ্যতে বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় কিছু অর্জন করে নিয়ে আসবে।

মোঃ জাহিদুল ইসলাম

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button