ভ্রমন

বিডি ট্রেন ট্র্যাকার- এসএমএসের মাধ্যমে কিভাবে ট্রেনের অবস্থান জানবেন?

আমরা আজকে বাংলাদেশের সকল ট্রেন অবস্থান কিভাবে পাওয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা করছি।বাংলাদেশ রেলওয়ে মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে এবং এসএমএসের মাধ্যমে আন্তঃনগর এবং মেইল ট্রেনের অনুমতি দেয়। যাত্রীদের যাতে কোনো রকমের দুর্ভোগ পোহাতে না হয় সেজন্য বাংলাদেশ রেল মন্ত্রণালয় কর্তৃক এসএমএস সেবা চালু হয়েছে।যেখানে এসএমএসের মাধ্যমে নির্দিষ্ট স্থানে ট্রেনের অবস্থান পরবর্তী স্টেশন ইত্যাদি সম্পর্কে জানা যায়।

যার জন্য শুধু একটি এসএমএস প্রেরণ করা দরকার। তবে তার জন্য আপনাকে ট্রেন নম্বর জানতে হবে। ট্রেন নম্বর কোথায় পাবো? আপনি যদি টিকিট সংগ্রহ করে থাকেন তবে নির্দিষ্ট ট্রেনের কোড নাম্বার টিকিট এর মধ্যে উপলব্ধ আছে। আপনি সেখান থেকে ট্রেনের নাম্বার টি সংগ্রহ করতে পারেন।ট্রেন ট্রাকিং এসএমএস সিস্টেম চালুর মাধ্যমে বাংলাদেশের সকল রেল যাত্রীরা ট্রেনের বিলম্ব সময় এবং বর্তমান অবস্থান, পূর্ববর্তী এবং পরবর্তী স্টেশন সম্পর্কে তথ্য জানতে পারেন। তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক, সেই অফিশিয়াল এসএমএস ফরম্যাটটি কিরকম।

ট্রেন ট্রাকিং এসএমএস ফরওয়ার্ড

প্রথমে মোবাইলের মেসেজ অপশনে যান এবং টিয়ার টাইপ করুন এবং একটি এক্সপ্রেস দিন তারপরে অবশেষ ট্রেন নম্বর টাইপ করুন যেকোনো মোবাইল নম্বর থেকে বার্তাটি প্রেরণ করুন।

TR> Train Noএবং 16318 নম্বরে Send করুন

শীঘ্রই সার্ভার থেকে একটি বার্তা পাবেন।
সার্ভারটি ট্রেনের জিপিএস অবস্থান এবং গ্রাহককে বর্তমান অবস্থান পূর্ববর্তী স্টেশন, পরবর্তী স্টেশন এবং পৌছানোর সময় সম্পর্কে অবহিত করে। বিলম্বের সময় এসএমএসে দেখায়।

ট্রেনের অবস্থান পাওয়ার জন্য এসএমএস চার্জ

বাংলাদেশের সকল মোবাইল অপারেটর যেমন গ্রামীণফোন বাংলালিংক রবি এয়ারটেল টেলিটক ইত্যাদির মাধ্যমে বার্তা প্রেম করা যায়। যার জন্য এসএমএস চার্জ টি 4 টাকা + ভ্যাট। অর্থাৎ বর্তমানে 5.32 টাকা।  আপনি যখন বার্তাটি প্রেম করবেন তখন আপনার মোবাইল অপারেটরের মন ব্যালেন্স থেকে এই চার্জটি কেটে নেওয়া হয়। ছাড়া কোন অতিরিক্ত চার্জ নেওয়া হয় না।

আপনি যদি ট্রেনের অবস্থান সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে চান তবে খুব অল্প সময়ের মধ্যে এসএমএসের মাধ্যমে সেই ট্রেনের প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে পারবেন।

Ali Hossain

আমি মোঃ আলী হোসেন । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button
Close