সমস্যা এবং সমাধান

গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে কি করবেন?

আমরা মাছে ভাতে বাঙালি । মাছ খাওয়ার সময় শিশু, যুবক এবং বৃদ্ধ সকল বয়সের মানুষের মাড়িতে মাছের কাঁটা আটকে যেতে পারে।  তাৎক্ষণিকভাবে আপনি কি করবেন? আসুন জেনে নেয়া যাক মাড়িতে মাছের কাঁটা আটকে গেলে অথবা হাতে মাছের কাটা ফুটলে করণীয় বিষয় সমূহ জেনে নেয়া যাক।  মা যদি পরিপূর্ণ তেলের ওপর কড়াভাবে ভেজে নেওয়া যায় তবে মাছের কাঁটা গলায় বেধে যাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। কিন্তু বড় মাছের কাটা অথবা ছোট মাছের কাটা অনেক সময় গলার মাড়িতে আটকে যায়। ভেতর  থেকে অস্থির যন্ত্রণার উপলব্ধি হয়।শিশু বাচ্চাকে মাছের কাঁটা বেছে দিয়েও অনেক সময় গলায় মাছের কাঁটা আটকে যায় ফলে, সচেতন অভিভাবক দের মনে নানাবিধ দুশ্চিন্তা সৃষ্টি হয়।  আমরা এখানে মাছের কাঁটা গলায় বিধে যাওয়ার পরে কিছু করনীয় বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। 

সুতরাং, গলায় মাছের কাঁটা বিঁধে গেলে অথবা হাতে মাছের কাটা ফুটলে তাড়াহুড়ো না করে নিশ্চিন্তে নিচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন।  যাতে আপনার বেদনা কমে যাবে এবং কারা পাকস্থলীর ভিতরে চলে যাবে।

 শিশুর গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে করণীয়

শিশুর গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে সামান্য একটু লেবুর রস মিশিয়ে দিলে সেই কাটা পাকস্থলীর ভেতরে চলে যায়।  শিশু যেহেতু কোন কিছু বলতে পারে না বা বলতে পারলেও অসম্পূর্ণভাবে বলে তাই, অভিভাবক কে তার দেখভাল করতে হবে।  বাসা লেবুর রস না থাকলেও আপনি অন্য উপায় অবলম্বন করতে পারেন জানিয়েছে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

সুতরাং, গলায় মাছের কাঁটা আটকে গিয়ে অনেকেই সুপ্রভাত গিলে খেতে বলে। কিন্তু তাতে ঝুঁকি আরো বেশি থাকে। তাই সঠিকভাবে সঠিক পন্থা অবলম্বন করে গলা থেকে মাছের কাঁটা সরাতে আমাদের নিচের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন।

মাড়িতে মাছের কাঁটা আটকে গেলে করণীয়

পানি পান করুন:  গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে প্রথমে অধিক পরিমাণে পানি পান করলে মাছের কাঁটা ভেতরে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 

মুঠো করে সাদা ভাত গিলুন:  মুঠো করে সাদা ভাত গিলতে পারলে মাছের কাঁটা পাকস্থলী ক্ষেত্রে চলে যায়। তবে সাবধান শিশু বাচ্চাকে কখনোই মুঠো করে সাদা ভাত গিলতে দেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। 

লেবুর রস খান: লেবুর রসে প্রচুর পরিমাণ সাইট্রিক এসিড থাকে যার ফলে সেই রস পান করলে সাইট্রিক এসিড এর সমন্বয় পিচ্ছিল ভাব গলায় অনুভূত হবে এবং মাছের কাঁটা তাৎক্ষণিকভাবে ভেতরে যাওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি থাকে। 

ভিনেগার খান: গলার মাড়িতে মাছের কাঁটা আটকে গেলে ভিনেগার খেতে পারেন।  ভিনেগারে পিচ্ছিল ভাব মাছের কাঁটা কে সঙ্গে নিয়ে পাকস্থলীর ভেতরে দৌড়াতে থাকে।

কোকাকোলা পান করুন: আপনারা জানেন যে কোকাকোলা নষ্ট তালা খুলতে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু গলায় মাছের কাঁটা আটকে গেলে কোকাকোলা পান করলে সমপরিমাণ তার সার্থকতা পাওয়া যায়।

হাতে মাছের কাঁটা আটকে গেলে করণীয়

মাছ পরিষ্কার করতে গিয়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে শিং মাছের কাঁটা  হাতে আটকে গেলে ভীষণ ব্যথা অনুভূত হয়।  সে ব্যথা কেলা ভোগ করার জন্য যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনি ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন।

 

Show More

মোঃ জাহিদুল ইসলাম

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম । 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button
Close